বেসরকারী ডিগ্রী কলেজ শিক্ষকদের ছুটি বিধি ১৯৯৪ ও বেসরকারি শিক্ষকদের মেডিকেল ছুটির বিধান ?

এই পোস্ট থেকে নিম্নলিখিত বিষয় সমূহ জানা যাবেঃ

  • ছুটি কি অধিকার ?
  • দীর্ঘ অবকাশ কি?
  • ছুটি লাভের ন্যূনতম চাকুরীর মেয়াদ কত?
  • ডিগ্রী কলেজ শিক্ষকদের নৈমিত্তিক ছুটি ;
  • ডিগ্রী কলেজ শিক্ষকদের অর্জিত ছুটি;
  • ডিগ্রী কলেজ শিক্ষকদের ছুটির হিসাব;
  • ডিগ্রী কলেজ শিক্ষকদের প্রসবকালীন ছুটি;
  • ডিগ্রী কলেজ শিক্ষকদের শিক্ষা ছুটি;
  • ডিগ্রী কলেজ শিক্ষকদের কর্তব্য ছুটি;

 বেসরকারী ডিগ্রী কলেজ শিক্ষকদের ছুটি বিধি ১৯৯৪ সালের রেগুলেশন অনুসারে বেসরকারী ডিগ্রী কলেজ শিক্ষকদের ছুটি বিধি :

(১) ছুটি অধিকার নয় :

কর্তব্য পালনের মাধ্যমে ছুটি অর্জিত হইবে ইহা কখনও অধিকার হিসাবে দাবী করা যাবে না। পরিস্থিতির প্রেক্ষিতে নিয়োগকারী কর্তৃপক্ষ একজন শিক্ষকের ছুটির আবেদন মঞ্জুর, অথবা না মঞ্জুরকৃত ছুটির আদেশ প্রত্যাহার করিতে পারিবে।

(২) দীর্ঘ অবকাশ:

দীর্ঘ অবকাশ কালে একজন শিক্ষক কর্তব্যরত হিসাবে গণ্য হইবেন, তবে শর্ত থাকে যে দীর্ঘ অবকাশের অব্যবহিত পূর্বে বা অর্ধগড় বেতনে ছুটি প্রাপ্য না হওয়া সত্ত্বেও যদি কোন শিক্ষক অনুপস্থিত থাকেন অথবা তিনি বিনা বেতনে অসাধারণ ছুটিতে থাকেন তবে দীর্ঘ সময় তাহাকে কর্তব্যরত হিসাবে গণ্য করা হইবে না ।

(৩) ছুটি লাভের ন্যূনতম চাকুরী :

(এ) ন্যূনপক্ষে দুই বৎসর কাল শিক্ষক হিসাবে কাজ না করিয়া থাকিলে কোন শিক্ষক নৈমিত্তিক ছুটি ব্যতিরেকে অন্য ছুটি আবেদন করিতে পারিবেন না

(বি) বিশেষ প্রয়োজনের ক্ষেত্রে (১) উপধারায় বর্ণিত দুই বৎসরে স্বাস্থ্যগত কারণে অধ্যক্ষ একজন খিশক্ষককে অনধিক (পনের) দিন ছুটির মঞ্জুর করিতে পারিবেন ।

আরও জানুনঃ

ই-নামজারি কি ? ই-নামজারি আবেদন বা ই-নামজারি সিস্টেম নাগরিকের আবেদন করার উপায় ?

(৪) ডিগ্রী কলেজ শিক্ষকদের নৈমিত্তিক ছুটি :

একজন সরকারী কলেজের শিক্ষক যত দিন নৈমিত্তিক ছুটি পাইতে পারেন একজন বেসরকারী কলেজের শিক্ষকও ততদিন (বৎসরে ২০ দিন) নৈমিত্তিক ছুটি

পাইতে পারিবেন ।

(৫) ডিগ্রী কলেজ শিক্ষকদের অর্জিত ছুটি :

(এ) একজন শিক্ষক পূর্ণ এক বৎসর চাকুরীর জন্য দশ দিন চিকিৎসা ছুটি পাইতে পারিবেন ।

(বি) একজন নিবন্ধকৃত চিকিৎকের নিকট হইতে প্রত্যায়ন ও সুপারিশপত্র দাখিল সাপেক্ষে একজন শিক্ষককে স্বাস্থ্যগত কারণে একসংগে অনধিক ৭ দিনের ছুটি মঞ্জুর করা যাইতে পারে বিশেষ প্রয়োজন দেখা দিলে স্বাস্থ্যগত কারণে চিকিৎসকের সুপারিশ প্রাপ্তি সাপেক্ষ গভর্নিং বর্ডি একজন শিক্ষককে পূর্ণগড় বেতনে অনধিক তিন মাসের ছুটি মঞ্জুর করিতে পারিবেন যদি এই প্রকারের ছুটি শিক্ষককের পাওনা থাকে। যদি এই প্রকার ছুটি পাওনা না থাকে গভর্নিং বডি বিনা বেতনে যতদিন প্রয়োজন মনে করবেন ছুটি মঞ্জুর করিতে পারিবেন ।

গুগল নিউজ হতে আপডেট ” নিউজ হতে আইবাস++ ও সরকারি নিউজের আপডেট সংগ্রহ করে নিতে পারেন।

(৬) ডিগ্রী কলেজ শিক্ষকদের ছুটির হিসাব :

আলাদা ছুটির হিসাব কলেজের প্রত্যেক শিক্ষকের জন্য সংরক্ষণ করতে হবে।

(৭) ডিগ্রী কলেজ শিক্ষকদের প্রসবকালীন ছুটি :

একটি কলেজে নূন্যপক্ষে পাঁচ বৎসর শিক্ষকতা করিলে একজন শিক্ষিকাকে পূর্ণগড় বেতনে একসংগে দুই মাসের প্রসবকালীন ছুটি মঞ্জুর করা যাইতে পারে এবং তাহার সমগ্র চাকুরী জীবনে সর্বমোট অনধিক চার মাসের এরূপ প্রসবকালীন ছুটি মঞ্জুর করা যাইতে পারে। তবে চাকুরী কাল পাঁচ বৎসর পূর্ণ না হইলে ও সমন্বয় করা সাপেক্ষে তাহাকে আগাম প্রসবকালীন ছুটি মঞ্জুর করা যাইতে পারে।

(৮) ডিগ্রী কলেজ শিক্ষকদের শিক্ষা ছুটি :

একজন শিক্ষক একটি কলেজে ন্যূনপক্ষে বিরতিহীন তিন বৎসর শিক্ষকতা করিলে এবং তাহার পেশাগত যোগ্যতা বৃদ্ধির সম্ভাবনা থাকিলে গভর্নিং বডি একজন শিক্ষককে উচ্চ শিক্ষা লাভের জন্য শিক্ষা ছুটি মঞ্জুর করা যাইতে পারে।

আরও জানুুনঃ

সার্বজনীন পেনশন ব্যবস্থা কি ? সার্বজনীন পেনশন ব্যবস্থার আইন ২০২৩ ?

তবে শর্ত থাকে যে-

ছুটি বিধি

(ক) একজন শিক্ষককের সর্বমোট চাকুরী কালে এইরূপ ছুটি তার বৎসের অধিক হইবে না।

(খ) এইরূপ শিক্ষা ছুটিতে থাকাকালে একজন শিক্ষক পূণ গড় বেতন পাইবার অধিকারী হবেন।

(গ) সংশ্লিষ্ট শিক্ষককে এই মর্মে লিখিতভাবে একটি চুক্তিতে আবদ্ধ হতে হবে ।

যে তিনি উচ্চ শিক্ষা লাভের পরে সংশ্লিষ্ট কলেজে ন্যূনপক্ষে আট বৎসর চাকুরী করিবেন অন্যথায় তিনি শিক্ষা ছুটিতে থাকাকালে বেতন হিসাবে গ্রহণ করা সমদয় অর্থফেরৎ প্রদান করিতে বাধ্য থাকিবেন। একজন শিক্ষকের সর্ব চাকুরী কালে তাহাকে অনধিক এক বৎসরের অসাধারণ ছুটি গভর্নিং বডি মঞ্জুর করিতে পারিবেন। অসাধারণ ছুটির জন্য তিনি কোন প্রকার বেতন পাইবেনা এবং এইরূপ অসাধারণ ছুটি ভোগ করিলে, ছুটিকাল তাহার চাকুরীর জ্যেষ্ঠতা নির্ধারনের গণনা করা হবেনা বা উহা চাকুরী হিসাবে গণ্য হবে না ।

(৯) ডিগ্রী কলেজ শিক্ষকদের কর্তব্য ছুটি :

কলেজ একজন শিক্ষককের নিম্নলিখিত ক্ষেত্রে কর্তব্য ছুটি মঞ্জুর করতে পারবে :

(এ) কোন শিক্ষা বোর্ড, শিক্ষা/গবেষণা ইনস্টিটিউট,বিশ্ববিদ্যালয় অথবা সরকারকর্তৃক গঠিত কোন সংস্থা, কমিটি অথবা একাডেমিক ইউনিটের সভায় যোগদান বা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃক প্রদত্ত কোন দায়িত্ব পালন ;

(বি) বিশ্ববিদ্যালয় বা সরকার কর্তৃক কলেজ শিক্ষককের জন্য পরিচালিত কোন প্রশিক্ষণ কোর্স /প্রোগ্রাম যোগদান;

হওয়া,

(সি) কোন আদালত একজন জুরী অথবা সরকারী স্বাক্ষী হিসাবে উপস্থিত

(ডি) শিক্ষা বিভাগ কোন কলেজ অথবা কোন সুপ্রতিষ্ঠিত শিক্ষা বিষয়ক সমিতি আমন্ত্রণে বক্তৃতা প্রদান ।

রিলেটেড ট্যাগঃ

বেসরকারি শিক্ষকদের মেডিকেল ছুটির বিধান, বেসরকারি ডিগ্রী কলেজ শিক্ষকদের প্রতিষ্ঠানের ছুটি বিধি, বেসরকারি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি বিধি, বেসরকারি ডিগ্রী কলেজ  শিক্ষকদের ছুটি বিধি

Reply

error: Content is protected !!